logo
৫টি বদ অভ্যাস যার কারণে স্পোর্টস ইনজুরি হতে পারে

যখন খেলাধুলার কথা আসে আমরা বুঝতে পারি যে আমরা শুধু খেলতে চাই। যাহোক, কখনও কখনও আমরা যেভাবে খেলাধুলায় অংশগ্রহণ করতে চাই সেটা আমাদের জন্য খুব একটা সুখকর হয় না এবং প্রায়ই আমাদেরকে ইনজুরিতে পড়ার ঝুঁকিতে ফেলে দেয়। এখন আমরা পাঁচটি বদ অভ্যাস নিয়ে আলোচনা করব যা সাধারণত আমাদেরকে ইনজুরির ঝুঁকিতে ফেলেঃ

১। স্ট্রেচিং না করে খেলা

শুরু করার আগে স্ট্রেচিং করার জন্য হয়ত বাড়তি ১০ মিনিট দরকার হয়, কিন্তু আমাদের এটা করা উচিত। খেলা যতই কঠিন প্রতিযোগিতার হোক না কেন, আমাদের সবসময় উচিত খেলা শুরুর আগে ন্যুনতম কিছু সময় স্ট্রেচিং করে নেওয়া। এতে করে  ওয়ার্ম-আপের আগেই আমাদের শরীরের পেশী এবং জয়েন্ট ওয়ার্ম হয়ে যায়। এতে করে  আমাদের শরীরে রক্ত আরও অবাধে চলাচল করতে পারে এবং হৃদস্পন্দন কিছুটা বেড়ে যায়। যথেষ্ট স্ট্রেচিং হয়েছে এটা নিশ্চিত করার সবথেকে সহজ উপায় হল ৫ মিনিট হালকা স্ট্রেচিং ও মুভমেন্ট করা।

২। ওয়ার্ম-আপ বা কুল-ডাউন এড়িয়ে যাওয়া

স্ট্রেচিং এর মতই ওয়ার্ম-আপেও খুব বেশি সময় দরকার হয় না। খেলা শুরুর আগে ওয়ার্ম-আপ করলে এটি খেলার পারফর্মেন্সে অনেক প্রভাব ফেলে। ওয়ার্ম-আপের মূল বিষয় হল আমাদের হৃদস্পন্দন বৃদ্ধি, রক্ত ​​পাম্পিং এবং পেশী এবং জয়েন্টগুলি খেলার জন্য প্রস্তুত করা। এটি স্ট্রেচিং এবং আমাদের খেলাধুলার মধ্যবর্তী স্তর। কুল-ডাউনও একদম একই জিনিস, শুধু আমরা কুল-ডাউন করি খেলা শেষ করে। ওয়ার্ম-আপ বা কুল-ডাউন না করলে ইনজুরিতে পড়ার ঝুঁকি অনেকটা-ই বেড়ে যায় কারণ আমাদের পেশী এবং জয়েন্ট ফুল ফোর্স এ্যাক্টিভিটির জন্য প্রস্তুত থাকে না।

horizontal-banner-(1).gif৩। ব্যথা উপেক্ষা করা

যদিও কখনও কখনও ব্যথা উপেক্ষা করা এবং ব্যথার মধ্য দিয়ে খেলা চালিয়ে যাওয়া সহজ বলে মনে হতে পারে, তবে এতে করে আমাদের পছন্দের খেলাটি আবার খেলার সম্ভাবনাকে মারাত্মকভাবে ঝুঁকিতে ফেলতে পারে। ব্যথা আমাদেরকে জানান দেয় শরীরের কিছু একটা ঠিক নেই। এটি উপেক্ষা করে খেলে গেলে আমাদের গুরুতর ইনজুরি হতে পারে। যেমন, আমাদের যদি পায়ের গোড়ালি ট্যুয়িস্ট হয় এবং আমরা ব্যথা নিয়েই খেলে যাই, তাহলে গুরুতরভাবে পেশী বা হাড় ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে, এমনকি ১০ গুণ পর্যন্ত বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে।

৪। ভুল সরঞ্জাম পরা

আমরা যে খেলাই খেলি না কেন, এটি খেলার জন্য সর্বদা আলাদা আলাদা সরঞ্জাম থাকে। আমাদেরকে নিশ্চিত করতে হবে যে আমাদের খেলাধুলা করার জন্য সমস্ত সঠিক গিয়ার আছে তা সহায়ক ক্লিটস, শিন গার্ড বা ফেস মাস্ক যা-ই হোক না কেন। সঠিক সরঞ্জাম না পরার মাধ্যমে, বিশেষ করে এমন সরঞ্জাম যা সঠিক আকারের নয় বা যথেষ্ট সহায়ক নয়, আমাদের আহত হওয়ার সমূহ সম্ভাবনা থাকে। যেমন ধরা যাক জুতার কথা-ই। আমরা যদি ক্লিটস বা টেনিস খেলার জুতা বর সাইজের পরি, এতে শুধু আমাদের এ্যাংকেলই না বরং পুরো পা ও মেরুদন্ড ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ারও সম্ভাবনা থাকে। আমাদের শরীর একটি সিস্টেম যা একসাথে কাজ করে এবং একসাথে সুরক্ষিত এবং সমর্থন করা প্রয়োজন।

horizontal-banner-(1).gif

৫। ঠিকমত না খাওয়া

যদিও এটি একঘেয়ে শোনাচ্ছে, ঠিকমতো না খাওয়া আমাদের খেলায় নামার আগেই আমাদের  শরীরকে ব্যর্থতার জন্য সেট করতে পারে। আমরা সারাদিন যে খাবার খাই তা আমাদের শরীরে জ্বালানি ও পুষ্টি দেয়। আমরা যদি সঠিক খাবার যেমন ফল, শাকসবজি এবং প্রোটিন সমৃদ্ধ মাংস না খাই, তাহলে আমাদের শরীর দ্রুত এবং সংক্ষিপ্ত নড়াচড়া করার জন্য পর্যাপ্ত শক্তি পায় না। এটি সহজেই ধীর গতিশীলতা এবং স্পোর্টস ইনজুরির উচ্চ সম্ভাবনার দিকে পরিচালিত করতে পারে।